web stats সৌদির নতুন বাদশাহ হবেন যুবরাজ সালমানই

বুধবার, ২১ অক্টোবর ২০২০, ৫ কার্তিক ১৪২৭

সৌদির নতুন বাদশাহ হবেন যুবরাজ সালমানই

সৌদি আরবের বাদশাহ সালমান বিন আবদুল আজিজ আগামী সপ্তাহে পদত্যাগ করার পরিকল্পনা নিয়েছেন। তার পদত্যাগের পরই ছেলে মুহাম্মদ বিন সালমান সৌদি আরবের ক্ষমতা নেবেন।

সৌদি রাজপরিবারের ঘনিষ্ঠ একটি সূত্রের বরাত দিয়ে যুক্তরাজ্যের ডেইলি মেইল এমন খবরই দিয়েছে। খবরে বলা হচ্ছে, নিজের ছেলেকে ক্ষমতায় বসাতে তিনি সরে যাচ্ছেন। ডেইলি মেইলের বরাত দিয়ে বিভিন্ন দেশের গণমাধ্যম এ খবর প্রকাশ করেছে। খবরে অবশ্য নির্ভরযোগ্য কোনো সুনির্দিষ্ট সূত্র উল্লেখ করা হয়নি। সৌদি রাজপরিবারের ঘনিষ্ঠ ওই সূত্র ডেইলি মেইলকে জানিয়েছে, ‘নাটকীয় কিছু না ঘটলে আগামী সপ্তাহেই ছেলে মুহাম্মদ বিন সালমানের (এমবিএস) হাতে ক্ষমতা হস্তান্তর করবেন বাদশাহ সালমান। ’ পশ্চিমা বিশ্ব ও সাংবাদিকরা মুহাম্মদ বিন সালমানকে সংক্ষেপে ‘এমবিএস’ নামে লিখে থাকেন।

ক্ষমতা থেকে সরে যাওয়ার পর বাদশাহ সালমানের দায়িত্ব হবে অনেকটা ইংল্যান্ডের রানীর মতো। সূত্র জানায়, যদি নাটকীয় কোনো ঘটনা না ঘটে তবে আগামী সপ্তাহে সৌদি আরবের বাদশাহ হতে যাচ্ছেন মুহাম্মদ বিন সালমান। বাদশাহ হিসেবে মুহাম্মদ বিন সালমান দায়িত্ব নেওয়ার পর ‘পবিত্র দুই মসজিদের জিম্মাদার’ থাকবেন সালমান বিন আবদুল আজিজ। সৌদি আরব প্রতিষ্ঠার পর থেকে দেশটির বাদশাহ পবিত্র কাবা ও মসজিদে নববীর জিম্মাদারের দায়িত্ব পালন করে আসছেন। সালমানের পরিকল্পনা বাস্তবায়ন করা হলে এই প্রথমবারের মতো বাদশাহর বাইরে কারও হাতে মসজিদ দুটির দায়িত্ব থাকবে। ক্রাউন প্রিন্স মুহাম্মদ বিন সালমান সাম্প্রতিক সময়ের এক আলোচিত নাম। চলতি মাসের শুরুতে তিনি দুর্নীতিবিরোধী ওই অভিযান শুরু করেন। পাশাপাশি মধ্যপ্রাচ্যে নেতৃত্ব দিতেও তিনি মরিয়া হয়ে উঠেছেন। বিশেষ করে প্রতিদ্বন্দ্বী ইরানকে কোণঠাসা করতে নানা উদ্যোগ নিচ্ছেন।

বিন সালমান ২০১৫ সালের জানুয়ারিতে প্রতিরক্ষা মন্ত্রীর দায়িত্ব পেয়েছিলেন। গত জুনে ক্রাউন প্রিন্স নির্বাচিত হন। এরপর থেকেই ক্ষমতা পাকাপোক্ত করতে অনেকটা ‘বেপরোয়া’ হয়ে ওঠেন তিনি। এ পর্যায়ে তিনি ২০৩০ সালকে নির্দেশ করে সৌদি আরবের সামাজিক এবং অর্থনৈতিক পরিবর্তনের জন্য ব্যাপক পদক্ষেপ ঘোষণা করেন। তেলনির্ভরতা কাটিয়ে, পদ্ধতিগত দুর্নীতি থেকে মুক্তি এবং ধর্মীয় কট্টরপন্থা থেকে বেরিয়ে একটি ‘মধ্যপন্থি’ সমাজে দেশকে উত্তরণের প্রতিজ্ঞাও করেন তিনি। কর্মক্ষেত্রে আরও অধিক হারে নারীদের অংশগ্রহণের বিষয়টিও অগ্রাধিকার দেওয়ার কথা বলেন। সম্প্রতি নারীদের গাড়ি চালানো, তাদেরকে স্টেডিয়ামে গিয়ে খেলা দেখার মতো সুযোগও করে দিয়েছেন তিনি। ডেইলি মেইল

এই বিভাগের আরো খবর


WP2Social Auto Publish Powered By : XYZScripts.com