web stats প্রশান্ত মহাসাগরের মাঝে এই দ্বীপে একরাত থাকলেই নাকি মৃত্যু অনিবার্য

রবিবার, ২০ জুন ২০২১, ৬ আষাঢ় ১৪২৮

প্রশান্ত মহাসাগরের মাঝে এই দ্বীপে একরাত থাকলেই নাকি মৃত্যু অনিবার্য

প্রশান্ত মহাসাগরের মাঝে এক পরিত্যক্ত দ্বীপ সম্পর্কে শোনা যায় যে, এই দ্বীপে একরাত থাকলেই নাকি মৃত্যু অনিবার্য । আর রাত হলে যেন চেহারাটাই পাল্টে যায় প্রাচীন এই দ্বীপের।

এই দ্বীপের ভেতরের প্রাচীন শহরকে পৃথিবীর অষ্টম আশ্চর্যের তকমাও দেওয়া হয়ে থাকে। রহস্যময় এই দ্বীপ অস্ট্রেলিয়া থেকে ১৬০০ মাইল দূরে ও লস অ্যাঞ্জেলস থেকে ২৫০০ মাইল দূরে অবস্থিত। দ্বীপের নাম নান মাদোল। প্রশান্ত মহাসাগরের বুকে মাইক্রোনেশিয়ার পনফেই দ্বীপের পাশে ছোট এই দ্বীপ। স্থানীয়রা এই দ্বীপকে ‘ভূতুড়ে দ্বীপ’নামেই ডাকেন।

গবেষকরা ওই দ্বীপে গিয়ে দেখেছেন, সেখানে ৯৭টি আলাদা আলাদা ব্লক রয়েছে। সরু খালের মত জলাশয় সেগুলিকে একে অপরের থেকে আলাদা করে রেখেছে। তবে কি কারণে এই ধরনের ব্লক তা স্পষ্ট নয়। তবে কেন কেউ এমন একটি মাঝ সমুদ্রের দ্বীপে শহর তৈরি করলেন, সেটা আজও অজানা।

আশেপাশে তেমন কোনও সভ্যতার চিহ্নও নেই। স্যাটেলাইট ইমেজে ঘন জঙ্গল ছাড়া তেমন কিছু চোখে পড়ে না। দ্বীপে নামলে দেখা যায় সেখানে রয়েছে অনেক প্রাচীর, যার দেওয়াল ২৫ফুট লম্বা আর ১৭ ফুট মোটা।

নান মাদোল শব্দটির অর্থ হল, দুটি জিনিসের মাঝখানে থাকা কোনও বস্তু। পনফেই দ্বীপের বাসিন্দারা ওই দ্বীপের ধারে-কাছে যেতে চান না। তাদের দাবি, এই দ্বীপে ভূত আছে। তবে, অনেকে পর্যটকদের নিয়ে সেখানে যান শুধুমাত্র দিনের আলোতেই। কারণ, রাতের অন্ধকারে আলোকোজ্জ্বল অদ্ভুত সব বস্তু ঘোরাফেরা করতে দেখেছেন তারা।

এই বিভাগের আরো খবর


WP2Social Auto Publish Powered By : XYZScripts.com