web stats চ্যাম্পিয়ন্স লিগের ফাইনালে মাঠে ঢুকে পড়া কে এই স্বল্প-বসনা নারী?

রবিবার, ১৬ জুন ২০১৯, ২ আষাঢ় ১৪২৬

চ্যাম্পিয়ন্স লিগের ফাইনালে মাঠে ঢুকে পড়া কে এই স্বল্প-বসনা নারী?

স্বল্প-বসনা এক নারী হঠাৎ করে মাঠের ভেতরে ঢুকে পড়লে কিছুক্ষণের জন্যে ইউরোপিয়ান চ্যাম্পিয়ন্স লিগের ফাইনাল খেলাটি থেমে গিয়েছিল। শনিবার রাতে খেলা হচ্ছিল স্পেনের রাজধানী মাদ্রিদের ওয়ান্দা মেত্রোপলিতানো স্টেডিয়ামে, দুই ইংলিশ ক্লাব লিভারপুল ও টটেনহ্যাম হটস্পারের মধ্যে।

ইউরোপের সবচেয়ে বড় এই টুর্নামেন্টের ফাইনাল ম্যাচ শুরু হওয়ার ১৮ মিনিটের মাথায়, ততোক্ষণে মোহাম্মদ সালাহর দেওয়া এক গোলে এগিয়ে গেছে লিভারপুল, বল তখন একেবারে মাঠের মাঝখানে, হঠাৎ করেই দেখাই গেল অর্ধ-নগ্ন এ নারী সেন্টারের দিকে দৌড়ে যাচ্ছেন। তার পরণে কালো রঙের সুইমিং কস্টিউম।

ফুটবলাররা তখন খেলা বন্ধ করে দিয়ে ওই নারীর দিকে তাকিয়ে রইলেন। আর নিরাপত্তা রক্ষীরাও ওই নারীকে থামাতে তখন ছুটে আসলেন মাঠের ভেতরে।

খেলোয়াড়রা বল ফেলে বিস্মিত হয়ে যান। খেলা থামিয়ে দেন রেফারি। সাথে সাথেই নিরাপত্তা রক্ষীরা এসে তাকে জড়িয়ে ধরে অনেকটা জোর করেই নিয়ে যান মাঠের বাইরে।

বিভিন্ন সংবাদ মাধ্যমে বলা হচ্ছে, ওই নারী একজন মডেল। তার নাম কিনসি ভোলানস্কি। ইন্সটাগ্রামে তার অনুসারীর সংখ্যা তিন লাখেরও বেশি। সেখানে তিনি প্রায়শই স্বল্প কাপড় পরিহিত ছবি পোস্ট করে থাকেন।

বলা হচ্ছে, ইউটিউব-ভিত্তিক একটি রুশ পর্ণ ওয়েবসাইটের প্রচারণা চালাতেই তিনি অর্ধ-নগ্ন হয়ে খেলা চলাকালে মাঠের ভেতরে ঢুকে পড়েছিলেন।

সংবাদ মাধ্যমে আরো বলা হচ্ছে যে, তিনি ‘ভাইটালি আনসেন্সর্ড’ নামের এক্স রেটেড ওয়েবসাইটের রুশ-আমেরিকান প্রতিষ্ঠাতা ভাইটালি জদরভেতস্কির একজন বান্ধবী। মি.জদরভেতস্কিও একজন পর্ন অভিনেতা ছিলেন।

তার কালো সুইমিং কস্টিউমে সাদা রঙ দিয়ে ওই ওয়েবসাইটের নাম লেখা ছিল।

জদরভেতস্কিও এর আগে ২০১৪ সালে বিশ্বকাপের ফাইনালের সময় মাঠে ঢুকে পড়েছিলেন। সেসময় তার বুকে লেখা ছিল ‘ন্যাচরাল বর্ন প্র্যাঙ্কস্টার।’

ভাইটালি আনসেন্সর্ড একটি অ্যাডাল্ট ইউটিউব চ্যানেল। ওই চ্যানেলটি দেখা হয়েছে ১৬০ কোটি বার। এই চ্যানেলের অনুসারীও প্রায় এক কোটি।

এই ঘটনার পরপরই জেদরভেতস্কি ইনস্টাগ্রামে একটি পোস্ট দেন যেখানে তিনি লিখেন, “আমার বেবি গার্ল চ্যাম্পিয়ন্স লীগের ফাইনালে দাগ ফেলে দিয়েছে, তোমাকে নিয়ে আমার গর্ব, তুমি আমার সবকিছু।”

কিনসি ভোলানস্কিকেও পরে ছেড়ে দেওয়া হলে তিনি সোশাল মিডিয়াতে তার এই মাঠে ঢুকে পড়ার ব্যাখ্যা দিয়েছেন। তিনি লিখেছেন, “জীবন হচ্ছে যাপন করার জন্যে, আপনি এমন কিছু করুন যা আপনি চিরজীবন মনে রাখবেন।”

এই পোস্টের সাথে তিনি তার মঠে ঢুকে পড়ার একটি ভিডিও-ও আপলোড করেছেন।

-বিবিসি বাংলা।

এই বিভাগের আরো খবর


WP2FB Auto Publish Powered By : XYZScripts.com