web stats পাবনায় পায়ুপথে বাতাস ঢুকিয়ে হত্যার অভিযোগ

বৃহস্পতিবার, ২৩ মে ২০১৯, ৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬

পাবনায় পায়ুপথে বাতাস ঢুকিয়ে হত্যার অভিযোগ

পায়ুপথে বাতাস ঢুকিয়ে রসিকতার ছলে দুলাল হোসেন নামে এক সহকর্মীকে হত্যার অভিযোগ উঠেছে বরাত হোসেন নামে এক শ্রমিকের বিরুদ্ধে। শনিবার দুপুর ২টার দিকে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান দুলাল।

এর আগে গত বৃহস্পতিবার দুপুরে পাবনা বিসিক শিল্প নগরীতে দুলালের পায়ুপথে বাতাস ঢুকিয়ে দেয় সহকর্মী বরাত হোসেন। নিহত দুলাল পাবনার চাটমোহর উপজেলার মূলগ্রাম ইউনিয়নের পূর্বটিয়ারতলা গ্রামের আবু বক্কারের ছেলে। অভিযুক্ত বরাত হোসেন একই গ্রামের কামাল হোসেনের ছেলে।

নিহতের স্বজনদের বরাত দিয়ে মূলগ্রাম ইউনিয়নের ২নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য আরজান আলী জানান, গত বৃহস্পতিবার সকালে অন্যান্য দিনের মতো দুলাল পাবনা বিসিক শিল্প নগরীতে শ্রমিকের কাজ করতে যায়। অতিরিক্ত গরমের কারণে দুলাল তার সহকর্মী বরাতকে ধুলা পরিষ্কার করার মেশিন দিয়ে শরীরে বাতাস দিতে বলে।

এ সময় রসিকতার ছলে বরাত হোসেন পাইপ দিয়ে দুলালের পায়ুপথে বাতাস ঢুকিয়ে দিলে সে (দুলাল) অসুস্থ হয়ে পড়ে। এরপর প্রথমে তাকে পাবনা মেডিকেলে ও পরে অবস্থার অবনতি হলে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় শনিবার দুপুরে দুলালের মৃত্যু হয়।

পাবনা সদর থানার ওসি ওবাইদুল হক বলেন, পুলিশকে না জানিয়ে দুলাল নামের ওই শ্রমিকের লাশ বাড়িতে নিয়ে যান স্বজনরা। যেহেতু সদর থানা এলাকায় ঘটনা সেহেতু লাশটি উদ্ধার করে থানায় নিয়ে এসেছি। তবে পায়ুপথে বাতাস ঢোকানোর কারণে তার (দুলাল) মৃত্যু হয়েছে কিনা তা নিশ্চিত হওয়া যাবে ময়নাতন্তের প্রতিবেদন হাতে পাওয়ার পর।

এই বিভাগের আরো খবর