web stats মধ্যরাত থেকে বন্ধ হচ্ছে সাড়ে ২০ লাখ সিম

বৃহস্পতিবার, ২৩ মে ২০১৯, ৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬

মধ্যরাত থেকে বন্ধ হচ্ছে সাড়ে ২০ লাখ সিম

এক পরিচয়পত্রের বিপরীতে ১৫টির বেশি নিবন্ধিত হিসাবে ২০ লাখ ৪৯ হাজার ৯২৭টি সিম নিষ্ক্রিয় করা হচ্ছে। এসব সিম বন্ধ করে দিতে দেশের সব মোবাইল অপারেটরকে নির্দেশনা দিয়েছে টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রক সংস্থা বিটিআরসি।

বৃহস্পতিবার দিবাগত মধ্যরাত (জিরো আওয়ার) থেকে এই ২০ লাখ ৫০ হাজার সিম নিষ্ক্রিয় করার কাজ শুরু হবে। পরবর্তী ৭ থেকে ৮ ঘণ্টার মধ্যে সিমগুলি আর কাজ করবে না।

বিটিআরসির নির্দেশনা অনুযায়ী, একজন ব্যক্তি তার এনআইডি দিয়ে ১৫টির বেশি নিবন্ধিত সিম রাখতে পারবে না। কিন্তু বিটিআরসি দেখেছে একটি জাতীয় পরিচয়পত্রের বিপরীতে নিবন্ধন হওয়ার সিমের সংখ্যা নির্ধারণ করে দেওয়া সংখ্যাটি ছাড়িয়ে গেছে। আর এমন সিমের সংখ্যা ২০ লাখ ৫০ হাজারের বেশি। এজন্য এসব অতিরিক্ত সিম কমিয়ে ফেলতে বিটিআরসি তৈরি করেছে সেন্ট্রাল বায়োমেট্রিক ভেরিফিকেশন মনিটরিং প্ল্যাটফর্ম।

এ ব্যাপারে বিটিআরসির চেয়ারম্যান মো. জহুরুল হক বলেন, নিরাপদে মোবাইলফোন সিম ব্যবহারে এ প্রচেষ্টা আরো গ্রাহকবান্ধব হবে এবং এ খাত অধিকতর সুশৃঙ্খল হবে। আশা করছি, এর ফলে জনসাধারণ নির্বিঘ্নে উন্নত টেলিযোগাযোগ সেবা গ্রহণ করতে পারবে।

বিটিআরসির সূত্র মতে, ২০ লাখ ৪৯ হাজার ৯২৭টি সিমের মধ্যে গ্রামীণফোনের চার লাখ ৬১ হাজার। বাংলালিংকের চার লাখ ৫৫ হাজার। রবির চার লাখ ১৯ হাজার। এয়ারটেলের রয়েছে দুই লাখ ২৫ হাজার। আর রাষ্ট্রায়ত্ত টেলিটকের চার লাখ ৮৭ হাজার ৪৯২ সিম।

উল্লেখ্য, নিজের জাতীয় পরিচয়পত্রের বিপরীতে কয়টি সিম নিবন্ধন রয়েছে, একজন গ্রাহক তা সহজেই জানতে পারবেন মোবাইলের মাধ্যমে। এর জন্য তাকে *১৬০০১# ডায়াল করে নিজের জাতীয় পরিচয়পত্রের শেষ চার ডিজিট পুশ করতে হবে।

এই বিভাগের আরো খবর