web stats
ডিম বালকের টুইট, 'মুসলমানরা সন্ত্রাসী নয় '

শনিবার, ২০ জুলাই ২০১৯, ৫ শ্রাবণ ১৪২৬

ডিম বালকের টুইট, ‘মুসলমানরা সন্ত্রাসী নয় ‘

নিউজিল্যান্ডের ক্রাইস্টচার্চে দুটি মসজিদে এক শেতাঙ্গ বন্দুকধারীর নৃশংস হামলায় ঝরে গেছে ৫০টি তাজা প্রাণ। আহত হয়েছেন আরো অন্তত ৪৮জন। আর এসব ঘটনার কারণ হিসেবে দেশটির ইমিগ্রেন্টকে দায়ী করেছেন অস্ট্রেলিয়ার সিনেটর ফ্রেসার আনিং। এমন মন্তব্যের জের ধরে তার মাথায় ডিম ভাঙেন এক তরুণ, যাকে নিয়ে আলোচনা এখন সর্বত্র।

১৭ বছর বয়সি ওই কিশোরের নাম উইল কনোলি। কিশোরটি অস্ট্রেলিয়ার বাসিন্দা। এরই মধ্যে সিনেটরের মাথায় ডিম ভেঙে গোটা বিশ্বে ‘হিরো’ হিসেবে প্রশংসিত হচ্ছেন।

ঘটনার পর টুইটারে কনোলি লিখেছেন, ‘ওই মুহূর্তে মানুষ হিসেবে আমি গর্বিত। আপনাদের বলতে চাই, মুসলমানরা সন্ত্রাসী নয় এবং সন্ত্রাসবাদের কোনো ধর্ম নেই। যারা মুসলমানদের সন্ত্রাসী সম্প্রদায় মনে করে, তাদের মাথা অ্যানিংয়ের মতোই শূন্য।’

উইল কনোলির পক্ষ নিয়ে অস্ট্রেলিয়ার অন্তত ৫ লক্ষাধিক মানুষ অনলাইনে আবেদন করেছেন ফ্রাজার অ্যানিংকে পার্লামেন্ট থেকে বহিষ্কার করার। ওই বালকের ওপর সিনেটর ও তার লোকদের পচড়-থাপ্পর-আক্রমণকে ‘নিষ্ঠুর’ বলে অভিহিত করেছেন সবাই। ডিম হামলার পরে কিশোর উইল কনোলিকে গ্রেফতার করা হলেও অভিযোগ না এনেই ছেড়ে দিয়েছে পুলিশ।

এদিকে এই তরুণের জন্য তহবিলও গঠন করা হচ্ছে। রয়টার্সের খবরে বলা হয়, ওই কিশোরের জন্য তহবিল সংগ্রহের উদ্যোগ নেয়া হয়েছে। যেখানে এর মধ্যেই ১৯ হাজার অস্ট্রেলিয়ান ডলার (১৩৫০০ মার্কিন ডলার) জমা পড়েছে।

গতকাল শনিবার এক অনুষ্ঠানে অস্ট্রেলিয়ার সিনেটর ফ্রেজার অ্যানিংয়ের মাথায় ডিম ভাঙে ওই কিশোর। শুধু তাই নয় বিষয়টি নিজের মোবাইলে ভিডিও করে কনোলি।

নিউজিল্যান্ডের ক্রাইস্টচার্চে খ্রিস্টান সন্ত্রাসবাদী কর্তৃক নামাজরত মুসুল্লিদের উপর বর্বরোচিত হামলার পর মুসলমানদের নিয়ে বিরূপ মন্তব্য করেন সিনেটর ফ্রেজার অ্যানিং।

এর পরই বেশ তোপের মুখে পড়েন ফ্রেজার অ্যানিং। এরই প্রতিবাদে গতকাল শনিবার ওই কাণ্ডটি ঘটায় কিশোর উইল কনোলি। তাকে পুলিশ আটক করে পরে ছেড়ে দেয়। তবে সামাজিক মাধ্যমে এরই মধ্যে ওই কিশোরকে নিয়ে রীতিমত হৈ চৈ শুরু হয়ে গেছে।

Loading...

এই বিভাগের আরো খবর


Loading…

WP2FB Auto Publish Powered By : XYZScripts.com