web stats পিতৃহীন ও দরিদ্র ২৫১ মেয়েকে বিয়ে দিয়ে নজির গড়লেন ভারতীয় হীরা ব্যবসায়ী মহেশ সাভানি

বৃহস্পতিবার, ২৫ ফেব্রুয়ারি ২০২১, ১২ ফাল্গুন ১৪২৭

পিতৃহীন ও দরিদ্র ২৫১ মেয়েকে বিয়ে দিয়ে নজির গড়লেন ভারতীয় হীরা ব্যবসায়ী মহেশ সাভানি

হিন্দু, খ্রিস্টান ও মুসলমান এমন ২৫১টি পিতৃহীন মেয়ের বিয়ে বেশ ঘটা করেই দিলেন ভারতের হীরা ব্যবসায়ী মহেশ সাভানি। গুজরাটের সুরাটে এধরনের বিয়ের আয়োজন মহেশ প্রতিবছর করে থাকেন এবং যা শুরু হয় ২০১২ সাল থেকে। গত রোববার এধরনের কন্যাদান বা গণবিবাহ অনুষ্ঠানে শত শত মানুষ আমন্ত্রিত হয়ে আসেন। এদের মধ্যে দুটি মেয়ের বিয়ে হয় যাদের এইচআইভি পজিটিভ রয়েছে।

মহেশ সাভানি বিশ্বাস করেন, এধরনের আয়োজন ¯্রস্টার আশীর্বাদ। এ বিয়ের অনুষ্ঠানে প্রতিটি কনের পক্ষ থেকে মহেশ সাভানি স্বর্ণালঙ্কার, আসবাবপত্র, সোফা, বিছানাপত্র মিলিয়ে ৫ লাখ টাকার জিনিসপত্র বরকে দিয়েছেন। প্রতিবারই তা দেন। সামাজিক দায়িত্ব থেকেই মহেশ সাভানি এধরনের বিয়ের আয়োজন করেন যাদের। যার যার ধর্ম অনুযায়ী বিয়ের সমস্ত আনুষ্ঠানিকতা সম্পন্ন হয় এবং এ আয়োজন এক বিরাট মেলা বা উৎসবে পরিণত হয়।

ভারতে বিয়েতে কনে পক্ষ থেকে বর পক্ষ যৌতুক, নগদ অর্থ বা উপঢৌকন দাবি করে থাকে। এ কারণেও বিবাহযোগ্য অনেক মেয়ের বিয়ে দারিদ্রের কারণে দেওয়া সম্ভব হয় না। মহেশ সাভানি তাদের জন্যে অনেক বড় একজন অভিভাবক। ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেসকে মহেশ বলেন, মেয়েদের পিতার দায়িত্ব আমি গ্রহণ করেছি।

এ কাজে রিয়েল এস্টেট ব্যবসায়ী সঞ্জয় মোভালিয়া আমাকে সাহায্য করেছেন। যে সব মেয়ের বাবা মারা গেছে বা খুবই দরিদ্র, এমন পরিবারের পক্ষে মেয়ের বিয়ে দেওয়া বেশ কঠিন। ২০০৮ সালে মহেশের এক কর্মচারি মেয়ের বিয়ের দিন কয়েক আগে মারা যাওয়ার পর তিনি এধরনের আয়োজন ছোট পরিসরে শুরু করলেও ক্রমেই তা উৎসবে পরিণত হচ্ছে। ডেইলি মেইল

এই বিভাগের আরো খবর


WP2Social Auto Publish Powered By : XYZScripts.com