web stats জনপ্রিয় অভিনেত্রী কাজল সম্পর্কে অজানা তথ্য

বৃহস্পতিবার, ১ অক্টোবর ২০২০, ১৬ আশ্বিন ১৪২৭

জনপ্রিয় অভিনেত্রী কাজল সম্পর্কে অজানা তথ্য

এইবছর ‘নেনে রাজু নেনে মন্ত্রী’ তেলুগু মুভিটির জন্য বেস্ট অ্যাক্ট্রেস হিসেবে গোল্ডেন এওয়ার্ড লাভ করলেন তেলুগু অভিনেত্রী কাজল আগারওয়াল। এই ছবি ছাড়াও চলতি বছরে ‘কয়েদী ১৫০’, ‘বিবেগম’, ‘মার্শাল’ ছবিগুলোও ব্যবসাসফল হয়। তিনি সফল চলচ্চিত্র পেশার মাধ্যমে দক্ষিণ ভারতে জনপ্রিয়তা অর্জন করেছেন। অভিনয়ের পাশাপাশি তিনি মঞ্চ প্রদর্শনীতে অংশ নেন।

২০০৪ সালে, ‘কিউ! হো গায়া না’ চলচ্চিত্রের মাধ্যমে বলিউড চলচ্চিত্র শিল্পে এবং ২০০৭ সালে, ‘লক্ষ্মী কালিয়ানাম’ চলচ্চিত্রের মাধ্যমে তেলুগু চলচ্চিত্র শিল্পে তার আত্মপ্রকাশ ঘটে। তার প্রথম বাণিজ্যিক সাফল্য ছিলো ‘চান্দামামা (২০০৭)। তবে তিনি জনপ্রিয়তা অর্জন করেন মূলত ‘মাগাধীরা’(২০০৯) চলচ্চিত্রে অভিনয়ের পর, যা ছিলো তার অভিনীত ছবিগুলোর মধ্যে সবচেয়ে বড় বাণিজ্যিক সাফল্য।

এই ছবির জন্য তিনি শ্রেষ্ঠ তেলুগু অভিনেত্রীর জন্যে ফিল্মফেয়ার পুরস্কারে মনোনীত হন। ‘ডার্লিং’, ‘বৃন্দাভানাম’, ‘মি. পারফেক্ট’ , ‘বিজনেসম্যান’ , ‘নায়ক’ এবং ‘বাদশাহ’ (২০১৩) চলচ্চিত্রে ধারাবাহিক সাফল্যের মাধ্যমে তিনি তেলুগু চলচ্চিত্রে শীর্ষস্থানীয় অভিনেত্রী হিসেবে নিজেকে প্রতিষ্ঠিত করেন।

জনপ্রিয় এই অভিনেত্রী ১৯ জুন ১৯৮৫ সালে ভারতের মুম্বাইয়ে জন্মগ্রহণ করেন। তার বাবা বিনয় আগরওয়াল পেশায় একজন উদ্যোক্তা এবং মা সুমন আগারওয়াল একজন ময়রা (মিঠাইত্তয়ালা)। ছোট বোন নিশা আগরওয়াল তেলুগু ও তামিল চলচ্চিত্র অভিনেত্রী। তিনি কোলাবা, মুম্বাইয়ের সেন্ট অ্যান উচ্চ বিদ্যালয়ে এবং জয় হিন্দ কলেজে পড়াশোনা করেন।

এরপর মুম্বাইয়ের কে. সি. কলেজ থেকে স্নাতক শেষে গণমাধ্যম বিষয়ে ডিগ্রি নেন। মহাবিদ্যালয়ে অধ্যয়নকালীন সময়ে তার মডেলিং কর্মজীবনের শুরু। অভিনয়ের সিদ্ধান্ত নেওয়ার পূর্বে তার পরিকল্পনা ছিলো ব্র্যান্ড ব্যবস্থাপনা বিষয়ে এমবিএ পড়ার। এদিকে অ্যাকশন-থ্রিলার ঘরানার গল্প নিয়ে নির্মিত একটি ছবির শুটি নিয়ে বর্তমানে ব্যস্তময় সময় পার করছেন কাজল।

এই বিভাগের আরো খবর


WP2Social Auto Publish Powered By : XYZScripts.com