web stats সন্তানকে শূন্যে ছুড়ে আদর করেন? আজই সাবধান হন!

মঙ্গলবার, ১৯ জানুয়ারি ২০২১, ৫ মাঘ ১৪২৭

সন্তানকে শূন্যে ছুড়ে আদর করেন? আজই সাবধান হন!

মা-বাবার কাছে সন্তান সবচেয়ে প্রিয়। নিজের সন্তানকে সব মা-বাবাই ভালবাসা ও আদর স্নেহ করে থাকেন। আর এই ভালবাসার বহিঃপ্রকাশ ঘটাতে গিয়ে অনেক সময় প্রিয় সন্তানকে শূন্যে ছুড়ে আদর করেন অনেকে। শিশুকে শূন্যে তুলে ঝাঁকান। খুব সাবধান! মারাত্মক বিপদ ঘটে যেতে পারে। মস্তিষ্কে রক্তক্ষরণে কোমায় চলে যেতে পারে আপনার অতি আদরের শিশুটি। এমনকি তার মৃত্যুও পর্যন্ত হতে পারে।

আবার অনেক সময় দেখা যায় খোকাকে ঘুম পাড়ানো, কান্না থামানো বা দুষ্টুমি বাগে আনতে দুরন্ত বাচ্চাকে শূন্যে ছুড়ে আদর করেন। বা কান্না থামাতে শিশুকে শূন্যে তুলে ঝাঁকান। যা কখনোই ঠিক নয়।

আদর করুন।

অনেক ভালোবাসুন। যত্নে ভরিয়ে রাখুন শিশুকে। কিন্তু শূন্যে তুলে ঝাঁকানো বন্ধ করুন।
সম্প্রতি এক মার্কিন গবেষণায় উঠে এসেছে চাঞ্চল্যকর তথ্য। ৮০ শতাংশ চিকিত্সকের দাবি, ৩ বছরের ছোট শিশুকে ঝাঁকানো হলে শিশুর মস্তিষ্ক থেকে রক্ত বেরোতে পারে। একে সাবডুরাল হেমাটোমা বলে। ৯০ শতাংশ চিকিত্সকের মত, শিশুর মারাত্মক রেটিনাল রক্তক্ষরণও হতে পারে। ৭৮ শতাংশ চিকিত্সকের দাবি, এর ফলে শিশুটি কোমায় চলে যেতে পারে। এমনকী মৃত্যুও হতে পারে।

শিশুকে ঝাঁকানো হলে বারবার মস্তিষ্ক খুলির গায়ে ধাক্কা খায়। মস্তিষ্ক ও খুলির মাঝে ছোট ছোট রক্তনালি ছিঁড়ে যেতে পারে। ফলে, রক্তক্ষরণ শুরু হয়ে যেতে পারে। রক্ত জমাট বেঁধে যেতে পারে। ওই অংশ ফুলে যেতে পারে। যেহেতু শিশুর ঘাড় সংবেদনশীল হয়, ঝাঁকানোর ফলে পেশি ছিঁড়ে যেতে পারে। মারাত্মক ক্ষতিগ্রস্ত হতে পারে স্পাইনাল কর্ড। ব্রেনে মারাত্মক ইনজুরি হলে শিশু পক্ষাঘাতগ্রস্ত হয়ে যেতে পারে। অন্ধ হয়ে যেতে পারে। এমনকী বোবা-কালা হয়ে যেতে পারে শিশু।

এই বিভাগের আরো খবর


WP2Social Auto Publish Powered By : XYZScripts.com