counter ২৪ ঘন্টায় নিহত ৪৮ জন

রবিবার, ৩রা জুলাই, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, ১৯শে আষাঢ়, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

২৪ ঘন্টায় নিহত ৪৮ জন

ডেস্ক নিউজ :  মহামারি আকার ধারণ করা করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে দেশে গত ২৪ ঘণ্টায় আরও ৪৮ জনের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে ভাইরাসটিতে মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়াল তিন হাজার ৮৩ জনে। এসময় করোনাভাইরাসে আক্রান্ত শনাক্ত হয়েছেন দুই হাজার ৬৯৫ জন। এ নিয়ে আক্রান্ত শনাক্তের সংখ্যা দাঁড়াল ২ লাখ ৩৪ হাজার ৮৮৯ জন।

বৃহস্পতিবার দুপুরে স্বাস্থ্য অধিদফতরের নিয়মিত হেলথ বুলেটিনে এসব তথ্য তুলে ধরা হয়। অনলাইনে বুলেটিন উপস্থাপন করেন অধিদফতরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. নাসিমা সুলতানা।

দেশের ৮২টি ল্যাবের তথ্য তুলে ধরে নাসিমা সুলতানা জানান, গত ২৪ ঘণ্টায় নমুনা সংগৃহীত হয়েছে ১২ হাজার ৬৬৭টি। আগের কিছু নমুনাসহ পরীক্ষা হয়েছে ১২ হাজার ৯৩৭টি। এ নিয়ে দেশে মোট ১১ লাখ ৬৪ হাজার ১৯৫টি নমুনা পরীক্ষা করা হলো।

এছাড়া একদিনে সুস্থ হয়েছেন দুই হাজার ৬৬৮ জন। এ নিয়ে মোট এক লাখ ৩২ হাজার ৯৬০ জন রোগী সুস্থ হলেন। শনাক্ত বিবেচনায় সুস্থতার হার ৫৬ দশমিক ৬১ শতাংশ।

২৪ ঘণ্টায় শনাক্তের হার ২০ দশমিক ৮৩ শতাংশ এবং এ পর্যন্ত শনাক্তের হার ২০ দশমিক ১৮ শতাংশ। তবে দেশে শনাক্ত বিবেচনায় মৃত্যুর হার ১ দশমিক ৩১ শতাংশ।

নাসিমা সুলতানা জানান, গত ২৪ ঘণ্টায় মৃত ৪৮ জনের মধ্যে পুরুষ ৩৬ জন ও নারী ১২ জন। এদের বয়স বিশ্লেষণে তিনি জানান, মৃতদের মধ্যে  ৩১ থেকে ৪০ বছর বয়সী রয়েছেন একজন, ৪১ থেকে ৫০ বছরের চারজন, ৫১ থেকে ৬০ বছরের ১৪ জন, ৬১ থেকে ৭০ বছরের ১২ জন, ৭১ থেকে ৮০ বছরের ১১ জন, ৮১ থেকে ৯০ বছরের পাঁচজন, এবং ৯১ থেকে ১০০ বছর বয়সসীমার রয়েছেন একজন।

এদিকে বিশ্বজুড়ে জেঁকে বসা করোনার তাণ্ডব আরও বেড়েছে। গত একদিনে বিশ্বের ৭ হাজারের বেশি মানুষের প্রাণ কেড়েছে ভাইরাসটি। এতে করে মৃতের সংখ্যা ৬ লাখ ৭০ হাজার ছুঁতে চলেছে। নতুন করে আরও প্রায় ৩ লাখ করোনা রোগী শনাক্ত হয়েছে।

বিশ্বখ্যাত জরিপ সংস্থা ওয়ার্ল্ডমিটারের নিয়মিত পরিসংখ্যানে বলা হয়েছে, গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় প্রাণ ঝরেছে বিশ্বের ৭ হাজার ৩০ জন মানুষের। এতে করে মৃতের সংখ্যা ৬ লাখ ৬৯ হাজার ৫৬৬ জনে ঠেকেছে। একই সময়ে ২ লাখ ৯০ হাজার ১৩৩ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। এ নিয়ে আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে ১ কোটি ৭১ লাখ ৭৬ হাজার ৯৭০ জনে দাঁড়িয়েছে।

তবে, আশার কথা হলো, গত ২৪ ঘণ্টায়ও ২ লাখ ৩৮ হাজার ভুক্তভোগী সুস্থ হয়েছেন। এতে করে মোট বেঁচে ফেরার সংখ্যা ১ কোটি ৬ লাখ ৮৯ হাজার ৩০৩ জনে দাঁড়িয়েছে।

প্রসঙ্গত, গত বছরের ১৭ ডিসেম্বর চীনের হুবেই প্রদেশের উহান থেকে উৎপত্তি হওয়া প্রাণঘাতী করোনাভাইরাস বাংলাদেশসহ বিশ্বের ২১৩টি দেশ ও অঞ্চলে ছড়িয়ে পড়েছে। দেশে প্রথম কোভিড-১৯ রোগী শনাক্ত হন ৮ মার্চ এবং এ রোগে আক্রান্ত প্রথম রোগীর মৃত্যু হয় ১৮ মার্চ। গত ১১ মার্চ করোনাভাইরাস সংকটকে মহামারী ঘোষণা করে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও)।

এই বিভাগের আরো খবর



AllEscortAllEscort