counter রাজশাহীতে সাবেক স্বামীর পরিবার দারা হয়রানীর বিরুদ্ধে সংবাদ সম্মেলন

বুধবার, ১লা ডিসেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, ১৬ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

রাজশাহীতে সাবেক স্বামীর পরিবার দারা হয়রানীর বিরুদ্ধে সংবাদ সম্মেলন

নিজস্ব প্রতিবেদক : আমাকে অপহরন বা গুম করা হয়নি! আমি স্বেচ্ছায় স্বামীর সংসার ছেড়ে রাজশাহীতে চলে এসেছি। আজ মঙ্গলবার রাজশাহী মহানগরীর একটি রেস্তোরায় ছেলে উল্লাস সরকারকে নিয়ে সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যেমে স্বামীর নামে বড়াইগ্রাম থানায় মিথ্যা অভিযোগ প্রত্যাহার করার জোর দাবি জানান শ্রী চম্পা সরকার(৩২)। শ্রী চম্পা সরকার নাটোর জেলার বড়াইগ্রাম থানা এলাকার মৃত সুরেশ চন্দ্র সরকার(টগর) এর মেয়ে।

সম্মেলনে চম্পা সরকার বলেন, দীর্ঘ ১৫ বছর পূর্বে হিন্দু ধর্মের বিধান মতে শ্রী মদন সরকার পিতা-মৃত মনুন্দ্রনাথ সরকার, মাতা-মৃত সুনিতী সরকার, সাং বিরোপাড়া, ডাকঘর-গোপালপুর, থানা-লালপুর, জেলা-নাটোর, ধর্ম-সনাতন (হিন্দু), এর সহিত আমার বিবাহ হয়। বিবাহের পরবর্তী কালে আমাদের মধ্যে সাংসারিক বনিবনা না হওয়ায় আমার জীবন অন্ধকারে নিমজ্জিত হয়। আমি আমার ভবিষ্যৎ চিন্তা করে দুই ছেলের মধ্যে আমার ছোট ছেলে উল্লাস সরকারকে সাথে নিয়ে স্বামী সংসার ত্যাগ করে রাজশাহীতে চলে এসে গত ২৬ নভেম্বর রাজশাহী জেলা নোটারি পাবলিকের কার্যালয় স্ব-শরীলে হাজীর হয়ে আমার পূর্বের স্বামী শ্রী মদন সরকারকে (ডিভোস) পরিত্যাগের ঘোষানা করি। এবং গত ২৯ নভেম্বর শ্রী অমিত চৌধুরী, পিতা- অনিল চৌধুরী, মাতা- পূর্নিমা চৌধুরী, সাং- বিজয় নগর, পোষ্ট- রাজাবাড়ী হাট, থানা- গোদাগাড়ী, জেলা-রাজশাহী, ধর্ম- সনাতন (হিন্দু) এর সহিত রাজশাহী জেলা লোটারি পার্বলিকের কর্যালয়ে স্ব-শরীলে আমরা দুজনে হাজীর হয়ে বিবাহের এফিডেভিট সম্পাদন করি। এর পর থেকে, আমার সাবেক স্বামী শ্রী মদন সরকার ও তার ছোট ভাই মিলন সরকার প্রভাবশালী হওয়ায় আমার বড় ভাই বিল্পব সরকারকে ভুল বুঝিয়ে আমাকে ও আমার বর্তমান স্বামী শ্রী অমিত চৌধুরীর ক্ষতি করার লক্ষে বড়াইগ্রাম থানায় মিথ্যা অভিযোগ দিয়েছে। এখনে শেষ নয় আমার স্বামী ও তার ছোট ভাইয়ের গুন্ডা বাহিনী দিয়ে আমাদের মেরে ফেলার হুমকিসহ প্রতি নিয়ত ভয়ভীতি দেখাচ্ছে। আমি দীর্ঘ ১৫ বছর ধরে শুধু স্বামীর অত্যাচার নয় স্বামীর ছোট ভাই মিলন সরকার কয়েক দফায় আমাকে মারধর করে। গত ১৭ নভেম্বরেও আমাকে আমার দেবর চড় থাপ্পর লাথি মেরে বাড়ি থেকে বের করে দিলে প্রথমে আমি আমার ভাই বিল্পব সরকারের বাসায় গিয়ে উঠি সেখানেও সাবেক স্বামী ও দেবর অত্যাচার শুরু করলে ছেলেকে সাথে নিয়ে আমি রাজশাহীতে চলে আসি। আমি এখন আমার বর্তমান স্বামী শ্রী অমিত সরকারকে নিয়ে সুখে আছি ভালো আছি। আমাকে কেউ অপহরন বা গুম করে নিয়ে আসেনি। আমি এই সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যেমে আমার স্বামীর নামে বাড়াইগ্রাম থানায় মিথ্যা অভিযোগ প্রত্যাহার করার জোর দাবি জানান। এ বিষয়ে শ্রী চম্পা সরকারের সাবেক স্বামী শ্রী মদন সরকার এর সাথে কথা বললে তিনি বলেন, আমার স্ত্রী আমাদের কাউকে কিছু না বলে বাড়ি থেকে বেরিয়ে তার ভাই বিল্পব সরকার এর বাসায় চলে যায়। পরে জানতে পারি সেখান থেকে স্ত্রী চম্পা আমার ছোট ছেলে উল্লাসকে নিয়ে রাজশাহী চলে গেছেন। আপনার স্ত্রী আপনাকে ডিভোর্স দিয়েছে এমন প্রশ্নের উত্তরে শ্রী মদন সরকার বলেন,কিছুদিন আগে আমি ডিভোর্স এর কপি পাই যা আমার ছোট ভাই মিলন পড়ার পরে ছিড়ে ফেলে। স্ত্রী চম্পাকে তার ছোটভাই দ্বারা নির্যাতন করার বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি এ বিষয় এরিয়ে যান।

এ বিষয়ে শ্রী চম্পা সরকারের ভাই বিল্পব সরকারকে কয়েকবার ফোন দিলে তিনি ফোন রিসিভ করেননি

এই বিভাগের আরো খবর