counter দুধের সঙ্গে হলুদ মিশিয়ে খাওয়ার হিড়িক ভারতীয় পুলিশে

শনিবার, ২৮শে মে, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, ১৪ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

দুধের সঙ্গে হলুদ মিশিয়ে খাওয়ার হিড়িক ভারতীয় পুলিশে

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : করোনা মোকাবিলায় প্রতিনিয়ত ঝুঁকি নিয়ে কাজ করতে হচ্ছে পুলিশ কর্মীদের। তাই এই ক্রান্তিকালে হলুদ, দুধ, ভেষজ চা, উষ্ণ লেবুজলকে অস্ত্র হিসেবে বেছে নিয়েছে ভারতের পুলিশ বাহিনী। নিয়মিত এই খাবার খেতে নির্দেশিকা জারি করে দিয়েছেন মালদহ জেলা পুলিশ সুপার। এর পরেই ওই জেলার থানায় থানায় হলুদ দুধ খাওয়ার হিড়িক পড়েছে।

প্রাণঘাতী ভাইরাসের সংক্রমণ ঠেকাতে শরীরে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ানোর ওপর জোর দিচ্ছেন বিশেষজ্ঞরা। তাই রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধির লক্ষ্যে মালদহের পুলিশকর্মীদের জন্য তৈরি হয়েছে মেনু চার্ট। খাবারের এই চার্ট ইতিমধ্যেই পৌঁছে গেছে জেলার সমস্ত থানার ওসি-দের কাছে।

মালদহের পুলিশ সুপার অলোক রাজোরিয়া জানিয়েছেন, করোনার এই পরিস্থিতিতে পুলিশ কর্মীদের নিয়মিত উষ্ণ লেবু পানি খেতে হবে, দুধের সঙ্গে হলুদ মিশিয়ে প্রতিদিন এক থেকে দু’বার এবং বিশেষ ধরনের ভেষজ চা দিনে দু’বার বা একবার পান করতে বলা হয়েছে।

করোনা ঠেকাতে শারীরিক রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধির প্রয়োজনীয়তা সম্পর্কে একমত চিকিৎসক মহল। কিন্তু পুলিশের এই মেনু চার্টে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা কতটা বাড়বে। এ সম্পর্কে মালদা মেডিকেল কলেজেরই আর্য়ুবেদ বিভাগের ভারপ্রাপ্ত চিকিৎসক কল্যাণ মিত্র বলেন, জেলা পুলিশের এই খাবারে স্বাভাবিক নিয়মে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা শরীরে বাড়বে।

এদিকে নির্দেশিকা মেনেই মালদহের বিভিন্ন থানায় সিভিক ভলান্টিয়ার থেকে সাধারণ পুলিশকর্মী এবং অফিসারেরা হলুদ দুধসহ অন্যান্য খাবার গ্রহণ শুরু করেছেন।

আয়ুর্বেদিক বিশেষজ্ঞরা আরও বলছেন, যে কোনো ধরনের সংক্রমণ রোগ প্রতিরোধে খুবই উপকারী হলুদ মেশানো দুধ। তাই হলুদ মেশানো দুধ খাওয়ার পরামর্শ দিয়েছেন তারা।

এছাড়া ‘গার্ডিয়ান’ পত্রিকায় প্রকাশিত এক প্রবন্ধে বলা হয়েছে, ২০১১ সালে সিডনি, স্যান ফ্রান্সিসকো ও ইংল্যান্ডের বিভিন্ন ক্যাফেতে দুধের সঙ্গে হলুদ, আমন্ড ও কাজু মিশিয়ে বানানো ‘টারমারিক লাতে’ ছিল সবচেয়ে জনপ্রিয় পানীয়। সূত্র: নিউজ এইটটিন

এই বিভাগের আরো খবর



AllEscortAllEscort