counter গাংনীর বামন্দী পশুহাটে মানা হচ্ছে না স্বাস্থ্যবিধি ও সামাজিক দূরত্ব

বৃহস্পতিবার, ৩০শে জুন, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, ১৬ই আষাঢ়, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

গাংনীর বামন্দী পশুহাটে মানা হচ্ছে না স্বাস্থ্যবিধি ও সামাজিক দূরত্ব

রাব্বি আহমেদঃ মেহেরপুর গাংনী ঐতিহ্যবাহী বামন্দীর হাটে মাস্ক বিতরণ ও সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে গরুর হাট পরিচালনা করছে বলে বৃহস্পতিবার(২৪জুলাই)গাংনী উপজেলা চোরাচালান ও আইন-শৃংখলা সভাতে দাবি করেন।

আজ শুক্রবার(২৫জুলাই) সরেজমিন পরিদর্শন করে দেখা যায়, কোথাও মাস্ক বিতরণ করা হচ্ছে না,গরু ব্যবসায়ী ও ক্রেতাদের মুখে নেই মাস্ক।

করোনাভাইরাস সংক্রমনের ঝুঁকি নিয়েই উপজেলার ঐতিহ্যবাহী বামন্দীর পশুর হাটে স্বাস্থবিধি মেনে চলার কোন বালাই নেই। স্বাভাবিক সময়ের মত জনসমাগম করেই চলছে হাটে বেচাকেনা। এতে দ্রুত মরণব্যাধি করোনাভাইরাস ছড়িয়ে পড়ার ঝুঁকি দেখছেন সচেতন মহল।

সরেজমিনে দেখা গেছে, ঈদ-উল-আযহা উপলক্ষে গাংনীসহ পার্শ্ববর্তী মেহেরপুর সদর,মুজিবনগর,দৌলতপুর, উপজেলার বিভিন্ন এলাকা থেকে হাজার হাজার গরু, মহিষ, ছাগল উপজেলার বামন্দী পশুহাটে নিয়ে আসা হয়। এ হাটে গবাদি পশু ক্রয়ের জন্য দূর-দূরান্ত থেকে গরুর ব্যাপারিরা আসেন।

বাইরের ব্যাপারি ছাড়াও এলাকার অনেক ব্যাপারি এই হাট থেকে গরু ক্রয় করে দেশের বিভিন্ন স্থানে বিক্রির জন্য নিয়ে যায় এবং উপজেলার মানুষ কুরবানীর জন্য গরু, ছাগল ক্রয় করেন। উপজেলার মধ্যে এই হাট বড় হবার কারণে ব্যাপক লোক সমাগম ঘটে।

গাংনীতে স্বাস্থ্য বিধি না মেনে চলছে পশুর হাট
সরকার কুরবানির ঈদকে সামনে রেখে সামাজিক দূরত্ব বজায় ও মুখে মাস্ক পড়ে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলাচলের শর্তে দেশের হাটবাজার বিশেষ করে গো-হাট গুলোতে বেচাকেনার নির্দেশ দিয়েছেন। যার কোনটাই বিন্দু মাত্র মানতে দেখা যায়নি।

গরু বিক্রেতা রাকিব আলী জানান,গো-হাটের ভিতর জনসমাগমের চাপে হেটে চলার উপায় নেই। বেশি সময় মুখে মাস্ক ব্যবহার করলে দম বন্ধ হয়ে আসে। তাই মাস্ক খুলে রেখেছি।’

কুরবানির ক্রেতা গরু এরশাদ আলী জানায়,‘এই ভিড়ে আর প্রচন্ড গরমে মাস্ক ব্যবহার করা যায়নি। তাই খুলে রেখেছি।’

গাংনী উপজেলা চোরাচালান ও আইন-শৃংখলা সভাতে মাস্ক বিতরণ ও সামাজিক দূরত্ব বজায় আছে বলে দাবি করেছিলেন মনিরুজ্জামান আতু। সাংবাদিকের প্রশ্নের জবাবে তিনি জানান,মাস্ক বিতরণ কিসের,মাস্ক বিক্রয় করছিল।তিনি সুন্দর করে নিউজ করতে অনুরোধ করেন বলেন আপনারা লেখেন যে বামন্দী হাট কর্তৃপক্ষ মাস্ক বিতরণ করছে। সামাজিক দূরত্বের বিষয়টি প্রশ্ন করা হলে বিষয়টি তিনি এড়িয়ে যান।

গাংনী উপজেলা নির্বাহী অফিসার আর এম সেলিম শাহনেওয়াজ জানান,উপজেলা নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট(ভূমি) পাঠানো হয়েছিল মাস্ক না পরার কারনে অনেককে জরিমানা করা হয়েছে।

গাংনী উপজেলা নির্বাহী কমিশনার (ভূমি) ইয়ানূর রহমান জানান,মাস্ক না পরার অপরাধে বামন্দী পশুর দুজনকে ২’শ টাকা জরিমানা করা হয়।

এই বিভাগের আরো খবর