counter ওয়েব সিরিজের অশ্লীল দৃশ্য সরাতে হাইকোর্টের নির্দেশ

সোমবার, ২৬শে সেপ্টেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, ১১ই আশ্বিন, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

ওয়েব সিরিজের অশ্লীল দৃশ্য সরাতে হাইকোর্টের নির্দেশ


ডেস্ক নিউজ : বিভিন্ন অনলাইন প্লাটফর্মে থাকা বিভিন্ন ওয়েব সিরিজে প্রদর্শিত অশ্লীল দৃশ্য ৭ দিনের মধ্যে সরিয়ে ফেলতে বিটিআরসিসহ সংশ্লিষ্টদের নির্দেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট। একইসঙ্গে বিটিআরসিকে এসব প্ল্যাটফর্ম থেকে কিভাবে রাজস্ব আদায় করে সেবিষয়ে একমাসের মধ্যে হাইকোর্টে প্রতিবেদন দাখিল করার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। বিচারপতি এম. ইনায়েতুর রহিমের ভার্চুয়াল হাইকোর্ট বেঞ্চ আজ বুধবার এ আদেশ দিয়েছেন। সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী ব্যারিস্টার মো. তানভীর আহমেদের করা এক রিট আবেদনে এ আদেশ দেন আদালত। এ আইনজীবী আদালতে নিজেই শুনানি করেন। 

এর আগে ওয়েব সিরিজে প্রদর্শিত অশ্লীল দৃশ্য সরিয়ে ফেলার নির্দেশনা চেয়ে গত ১২ জুলাই রিট আবেদন করেন ওই আইনজীবী। রিট আবেদনে তথ্য ও স্বরাষ্ট্র সচিব, বিটিআরসি’র চেয়ারম্যান ও পরিচালক, পুলিশের আইজি এবং সিআইডি’র সাইবার পুলিশ ব্যুরোর অতিরিক্ত উপ-মহাপরিদর্শককে (ডিআইজি) বিবাদী করা হয়। বিভিন্ন অনলাইন প্লাটফর্মে থাকা বিভিন্ন ওয়েব সিরিজে প্রদর্শিত অশ্লীল দৃশ্য সরিয়ে ফেলতে ই-মেইলের মাধ্যমে গত ১৪ জুন বিবাদীদের প্রতি আইনি নোটিশ পাঠান ওই আইনজীবী। একইসঙ্গে ওয়েব বেসড সমপ্রচার নিয়ন্ত্রণে কেন পৃথক একটি নীতিমালা তৈরী করা হবেনা, তা আগামী ৭ দিনের মধ্যে জানাতে বলা হয়। অন্যথায় যথাযথ আইনি পদক্ষেপ নেওয়া হবে বলেও নোটিশে উল্লেখ করা হয়। এই আইনি নোটিশ দেওয়ার পরও কোনো ব্যবস্থা না নেওয়ায় রিট আবেদন করা হয়।

নোটিশে বলা হয়েছে, উপযুক্ত পর্যবেক্ষণ বা নিয়ন্ত্রণ না থাকায় ওয়েব সিরিজগুলোতে আপত্তিকর দৃশ্য দিন দিন বেড়েই চলেছে এবং সেসব দৃশ্য জনসম্মুখে তুলে ধরা হচ্ছে। সম্প্রতি বাংলাদেশে ভিডিও প্রোভাইডারদের অন্যতম প্লাটফর্ম বিং এবং ইউটিউবে ওয়েব সিরিজ ‘বুমেরাং’ এবং ‘আগস্ট ১৪’-তে আপত্তিকর দৃশ্য দেখা গেছে। এমনকি এসব ওয়েব সিরিজে সিগারেট কিংবা অ্যালকোহল বিষয়ক দৃশ্য থাকার পরও সেক্ষেত্রে কোনপ্রকার সতর্কতামূলক বাণী প্রচার করা হয়নি। তাই এসব ভিডিও পর্নোগ্রাফি নিয়ন্ত্রণ আইন, ২০১২ এবং ডিজিটাল সিকিউরিটি এ্যাক্ট, ২০১৮ এর স্পষ্ট লঙ্ঘন। যা আমাদের দেশীয় সংস্কৃতি এবং সামাজিক নিয়মশৃঙ্খলার জন্যও হুমকিস্বরুপ। তাই অনলাইন প্লাটফর্ম থেকে ওয়েব সিরিজের আপত্তিকর ভিডিও বন্ধ করা এবং তা সরিয়ে ফেলা প্রয়োজন।

এই বিভাগের আরো খবর